আজ ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আসন্ন কিশোরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও মতবিনিময় করছেন কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগেরর সদ্য সাবেক সংগ্রামী সভাপতি শফিকুল গনি ঢালী লিমন।

প্রতিনিধি অনিক : একুশে অক্টোবর বুধবার সন্ধা ৭টায় হারুয়া এলাকায় কলেজ কেন্দ্রে মুরুব্বী যুব সামাজ ও তরুণদেরকে নিয়ে করেন মেয়র প্রার্থী শফিকুল গনি ঢালী লিমন। স্থানীয় এলাকাবাসী তাদের এলাকার নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন এবং তারা বলেন আপনি মেয়র হলে আমাদের পৌর এলাকার বিভিন্ন সমস্যাা সমাধান হবে আমরা আপনার মত তরুণ নেতৃত্বের অপেক্ষায়। লিমন ঢালী এভাবেই প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকার মানুষের কাছে গিয়ে শুনছেন তাদের দু:খ দুর্দশার কথা। তাদের কষ্ট দূর করতে দিচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি ও শুনাচ্ছেন আশার বাণী। কিশোরগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান নির্বাচিত প্রতিনিধিদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ফেব্রুয়ারিতে। ডিসেম্বরের শেষে নির্বাচন হবার খবরে উত্তাপ ছড়াতে শুরু করেছে পৌর এলাকাবাসী ও প্রার্থীদের মাঝে। গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে ৬১ হাজার ভোটে মেয়র নির্বাচিত হন মাহমুদ পারভেজ। তিনি এবারও দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। তবে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে এবার সবচেয়ে এগিয়ে আছে লিমন ঢালী। তরুণ সমাজ, যুব সমাজ ও মতবিনিময় সভা ও পরে শহরের কালীবাড়ির মোড়ে গণসংযোগসাধারণ ভোটার সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে তার রয়েছে নিবিড় সম্পর্ক। তাই তরুণ সমাজ ও ভোটাররা তাকে ঘিরেই স্বপ্ন বুনছে।এ ছাড়াও আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে সরব রয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি আব্দুল আজিজ,জেলা যুবলীগের আহবায়ক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বকুল,সাবেক প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম জুয়েল, জেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক এনায়েত করিম অমি ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শরীফুল ইসলাম শরীফ।অপরদিকে বিএনপি থেকে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ভিপি হাজী ইসরাইল মিয়া এবার বিএনপির প্রার্থী হচ্ছেন বলে মনে করছেন সাধারণ নেতাকর্মী ও ভোটাররা। তিনি ছাড়াও বিএনপি থেকে মনোনয়ন চাইবেন সাবেক মেয়র আবু তাহের মিয়া,পৌর বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক সাবেক এজিএস দেলোয়ার হোসেন দিলু।আওয়ামী লীগের দলীয় মনোয়ন প্রত্যাশী কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি লিমন ঢালী বলেন, আমি নির্বাচিত হলে কিশোরগঞ্জ পৌরসভাকে সর্বাধুনিক শহর হিসেবে গড়ে তুলবো। সব ধরনের নাগরিক সুবিধা সাধারন মানুষের ঘরে পৌছে দিব ইনশাআল্লাহ। ডিজিটাল পদ্ধতিতে অনলাইনে নাগরিক সুবিদা প্রাধান সহ আমাদের কিশোরগঞ্জ অ্যাপের মাধ্যমে নাগরিক সমস্যার অভিযোগ গ্রহন ও সার্বক্ষণিক তাদারকির মাধ্যমে নাগরিক সমস্যা নিশ্চিত করব ইনশাআল্লাহ এবং একটি উন্নত পৌরসভা গঠনে কাজ করাই হবে আমার প্রধান লক্ষ্য।তিনি আরো বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন প্রদান করেন তাহলে কিশোরগঞ্জ পৌরসভার সাধারণ মানুষের কল্যাণে দলমত নির্বিশেষে মানুষের কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করে যাব ইনশাআল্লাহ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category