আজ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ও কিসের সাংবাদিক

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি সাদেক মিয়া :কিশোরগঞ্জ জেলা মানবাধিকার ও পরিবেশ সাংবাদিক সোসাইটি মাপসাস এর সাধারণ সম্পাদক এস,কে শাহীন নবাব বলেন দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিক দের প্রাণের সংঘঠনের সাথে জড়িত থাকার কারণে সাংবাদিকদের নিয়ে কাজ করা একটু অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার ছোট এই অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি সাংবাদিক সংক্রান্ত বিষয়ে কাজ করতে গিয়ে প্রথম বাঁধা পেয়েছি খোদ সাংবাদিকদের কাছ থেকেই এক সাংবাদিক আরকে সাংবাদিককে মেনে নিতে নারাজ বিশেষ করে পতিপয় সিনিয়র সাংবাদিক জুনিয়র সাংবাদিকদের মেনে নিতে চাই না। প্রায় সময় সিনিয়র সাংবাদিকদের বলতে শুনি ও কিসের সাংবাদিক ও কোন মিডিয়ায় কাজ করে এই সব প্রশ্নের কথা বলতে চাই ২০১৫ইং থেকে প্রকাশিত অনলাইন দৈনিক মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ থেকে বিশেষ প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করি। এর পর ২০১৫ ইং ব্রক্ষপুত্র এক্সপ্রেস হোসেনপুর উপজেলা প্রতিনিধি ও জাতীসংঘ ঘোষিত মানবাদিকার ঘোষনা বাস্ত বায়নে সতেষ্ট ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ জেলা মানবাধিকার কর্মী ও অপরাধ বিষয়ক তথ্য সংগ্রহ কারী এরিয়া কিশোরগঞ্জ জেলা এবং হোসেনপুর উপজেলা প্রতিনিধি দৈনিক নওরোজ হোসেনপুর সাংবাদিক কল্যাণ পরিষদে সাধারণ সম্পাদক  ও ২০১৮ ইং হোসেনপুর ডিজিটাল প্রেস ক্লাবে দায়িত্বরত বর্তমানে আমরা কি একবার নিজের চোখ বন্ধ করে নিজের সাংবাদিকতা আসার সময়টা একটু চিন্তা করে দেখি আজ হয়তো আমাদের দেশের প্রথম শ্রেণীর মানবাধিকার নেতিতৃ কাজ করছি আপনারা আমার সাংবাদিকতা ও শুরু হয়েছে মুক্তিযোদ্ধা কণ্ঠ থেকে নিজের দক্ষতায় আজ ভালো মিডিয়া কাজ করছি  আজ যে ছেলেটি নামে সর্বত্র মিডিয়ায় সাংবাদিকতা করছেন সেই ছেলেটি দেশে প্রথম শ্রেণীর মিডিয়ায় কাজ করার সুযোগ পাবেন নিজের যোগ্যতা এ ছাড়া পায় বলতে শুনি। হলুদ সাংবাদিক কথিত সাংবাদিক আর মূল ধারা সাংবাদিক নাম সবম্ব মিডিয়ায় কাজ করে তাদের বলা হয় হলুদ বা কথিত সাংবাদিক আর যারা প্রথম শ্রেনীর মিডিয়ায় কাজ করে তাদের বলা হয় মূল ধারা সাংবাদিক আমার মানবাধিকার ও পরিবেশ সাংবাদিক কল্যান সোসাইটি অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি সাংবাদিকতাটা অনেকের শুরু হয়েছে হলুদ ও কথিত সাংবাদিকতা দিয়ে সময়েরি পরিবর্তনের সেই হলুদ আর কথিত সাংবাদিক হয়ে উঠে মূল ধারা সাংবাদিক  সর্ব মিলে আমি একটা কথা আগেও বলেছি আজও বলছি কতিপয় সিনিয়র নিজের সামরাজ্য যাতে নষ্ট না হয় সেই জন্য জুনিয়র দের মেনে নিতে নারাজ কিন্তু তারা জানেনা যে যত বেশি বাঁধা পায় তার সফলতা ও কাছে আমার সাংবাদিকতা এ পথে পথে বাঁধা দিয়েছেন তাদের সাংবাদিকতা এখন আমাদের উপর অনেকটা নিভশীল বাঁধা আমাকে তারা সাংবাদিক হতে দিবে না কি আছে সাংবাদিকতায় এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে সাংবাদিক হয়ে গেলাম এটাই বাস্তবতা প্রিয় কতিপয় সিনিয়র সাংবাদিক সহর্কমীবৃন্দ জুনিয়রদের ভালোবাসা দিয়ে পাশে রাখেন দেখবেন নিজের সাংবাদিকতার পথ সহজ হবে। অনেকেই বলেন অপ সাংবাদিকতা বন্ধ করতে হবে জি আপনাদের সাথে আমিও একমত কিন্তু সাংবাদিকতার নামে অপ সাংবাদিক যারা যুগ যুগ ধরে সাংবাদিকতা করে একটি সিন্ডিকেট তৈরি করছে  তারাই তারাই ও কিসের সাংবাদিক জনাব যদি কখোন শুভ কামনা রইল জুনিয়র সহ কর্মীদের জন্য আপনাদের পাশে মানবাদিকার ও পরিবেশ সাংবাদিক সোসাইটি মাপসাস সহ আমি ব্যাক্তিগত ভাবে আছি এবং থাকবো ।

            কলম যোদ্ধা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category