আজ ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে নতুন করে ৭৫ জনসহ মোট ২৫৪ জন কোয়ারেন্টাইনে

বিশেষ প্রতিনিধি: মোঃ মানিক মিয়া, কিশোরগঞ্জে নতুন করে ৭৫ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) দুপুর পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় এই ৭৫ জনকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এই সময়ে ৩৫ জন তাদের কোয়ারেন্টাইন সমাপ্ত করেছেন।এনিয়ে কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৪১ জনে। তাদের মধ্যে মোট ৮৭ জন তাদের কোয়ারেন্টাইন সমাপ্ত করেছেন।বর্তমানে জেলায় মোট ২৫৪ জন কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। তাদের মধ্যে ২৬ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে এবং বাকি ২২৮ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। তাদের সবাই বিদেশ ফেরত।কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, কিশোরগঞ্জ জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে বর্তমানে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ২৭ জন, হোসেনপুরে ৭ জন, পাকুন্দিয়ায় ১১ জন, কটিয়াদীতে ২৯ জন, বাজিতপুরে ৯ জন, কুলিয়ারচরে ১৯ জন, ভৈরবে ৯৭ জন, করিমগঞ্জে ১৮ জন, তাড়াইলে ৬ জন, ইটনায় ২ জন, মিঠামইনে ১৫ জন, নিকলীতে ১ জন ও অষ্টগ্রামে ১৩ জন কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।এর মধ্যে অষ্টগ্রাম উপজেলার ১৩ জনই প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে এবং ভৈরব উপজেলার ১৩ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।এদিকে জেলার ভৈরবে বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) দুপুর পর্যন্তÍ ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১৮ জনকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ভৈরবে এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা ১৪৫। তাদের মধ্যে ৪৮ জন তাদের কোয়ারেন্টাইন সমাপ্ত করেছেন।বাকি ৯৭ জনের মধ্যে মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) ও বুধবার (১৮ মার্চ) এই দুইদিনে ১৩ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন হিসেবে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে নব-নির্মিত ট্রমা হাসপাতালে এনে রাখা হয়েছে।করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অন্য সবাইকে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ অবস্থানে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সরকারের নিদের্শনা অনুযায়ী বিদেশ ফেরত প্রবাসীদেরকে তাদের নিজস্ব বাড়িতে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ ১৪ দিন থাকতে হবে। এই ১৪ দিন তারা একটি আলাদা কক্ষে আলাদা বসবাস করবেন। আর তাদের নিয়মিত পর্যেবেক্ষণ করবেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।এই সময়ে তারা হাট-বাজারে ঘোরাফেরাসহ স্বাভাবিক চলাফেরা থেকে বিরত থাকবে। এমনকি বাড়ির আঙিনায় চলাচল পর্যন্ত নিষিদ্ধ রয়েছে। কিন্তু এই নির্দেশনা তাদের অনেকেই মানছিলেন না।এমন পরিস্থিতিতে বুধবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে কোয়ারেন্টাইন বিধি অমান্য করায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনাপ্রাপ্ত মো. আকরাম (৫০) নামে এক ইতালী প্রবাসীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।ভৈরব উপজেলা সহকারী কমিশনার হিমাদ্রী খীসা এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। ইতালী প্রবাসী মো. আকরাম ভৈরব উপজেলার শম্ভুপুর ইতালীপাড়ার মৃত মতিউর রহমানের ছেলে।ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার হিমাদ্রী খীসা জানান, মো. আকরাম ১৪ দিনের সঙ্গনিরোধ নিয়ম অমান্য করে রেললাইনে ঘোরাফেরা করছিলেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে পাওয়া যাওয়ায় দণ্ডবিধির ১৮৬০, ২৭১ ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, কিশোরগঞ্জে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন বাড়ানো হচ্ছে। এজন্যে জেলার হাওর অধ্যুষিত উপজেলা অষ্টগ্রামের তিনটি উচ্চ বিদ্যালয়ে, ভৈরবের ট্রমা হাসপাতাল ও সদরের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category