আজ ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তাড়াইল বাজারের পুন:নির্মিত দৃষ্টিনন্দন বড় মসজিদ উদ্বোধন

বিশেষ প্রতিনিধি আমান উল্লাহ : কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলা সদর বাজারের বড় মসজিদটি পুন:নির্মান করে দৃষ্টিনন্দন করা হয়েছে।জামে মসজিদটি শুক্রবার জুমআর নামাজের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করা হয়েছে।
জানা গেছে, তাড়াইল বাজার বড় মসজিদটি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের সময় ১৯৬০ সালে নির্মানের পর থেকেই দেশ বিদেশের বহু ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিগন নামাজ আদায় করে আসছেন।মসজিদটির স্থাপত্য নকশা তখনকার সময়ে সকলের দৃষ্টি কাড়লেও বয়সের জন্য মসজিদটির পুন:নির্মান জরুরী ছিল বলে মনে করেন এলাকাবাসী। সেই সূত্র ধরেই বর্তমান কমিটি মসজিদটিকে পুন:নির্মান করে আধুনিকায়ন করার কাজে হাত দেন।
শুক্রবার (১৮ মার্চ) তাড়াইল উপজেলা সদর বাজারের দৃষ্টিনন্দন জামে মসজিদটি জুমআর নামাজের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করেছেন জামিয়া ইমদাদিয়া কিশোরগঞ্জের সিনিয়র মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা মুফতি শোয়াইব বিন আবদুর রউফ। সেখানে এখন চলছে সাজ সাজ রব। সৌন্দর্য বর্ধনে বিভিন্ন পদ্ধতিসহ লাইটিং করা হয়েছে। কারুকার্য খচিত একটি মিনার রয়েছে। এ মসজিদটিতে প্রতি তলায় ৭০০ সংখ্যাক মুসল্লি এক সঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারবেন। মসজিদের নীচতলা মুসুল্লিদের নামাজের জন্য সম্পূর্নভাবে প্রস্তুত থাকলেও চলছে উপড় তলার কাজ।
২০২১ সালের প্রথমদিকে উপজেলার আকতার আছেফা ফাউন্ডেশন এবং ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের সহযোগিতায় মসজিদ কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে গতকাল শুক্রবার জুমআর নামাজের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করা হয়। এর আগে ২০২১ সালের মার্চের ২০ তারিখ মসজিদটির নির্মাণ কাজের চার তলার ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন, কিশোরগঞ্জ-৩ তাড়াইল-করিমগঞ্জ আসনের সাংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নু এমপি।
তাড়াইল বাজার বড় জামে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সামির হোসেন সাকী জানান, এখন পর্যন্ত প্রায় ১ কোটি ১০লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে মসজিদটি। চারতলা পর্যন্ত কাজ শেষ হলে মোট ৩ হাজার মুসুল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারবেন। এরই মধ্যে সৌদি আরবের একটি সংস্থা নির্মান কাজে আর্থিক সহযোগীতা করেছেন। মসজিদটি চার তলার কাজ পর্যায়ক্রমে শেষ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category