আজ ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সেই কিশোরী ও নবজাতক ঠিকানা পেলো

প্রতিনিধি সুমন মিয়া: অবশেষে সেই মানসিক ভারসাম্য ও পরিচয়হীন কিশোরী এবং তার নবজাতক কন্যা সন্তানের ঠিকানা মিললো। বুধবার (১১ নভেম্বর) কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল থেকে অ্যাম্বুলেন্স যোগে ওই কিশোরী ও নবজাতককে সমাজসেবা অধিদফতরের গাজীপুরের পুবাইলে অবস্থিত আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

সমাজসেবা কার্যালয়ের কিশোরগঞ্জের উপ-পরিচালক কামরুজ্জামান খান, জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সালমা খানম, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের তত্ত্বাবধায় ডা. হেলাল উদ্দিন, জেলা প্রবেশন কর্মকর্তা মো. মোহসীন এর তত্ত্বাবধানে ওই কিশোরী ও তাঁর নবজাতককে ওই আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।সেখানে তারা নিরাপদে পৌঁছেছেন এবং ভাল রয়েছেন বলে জেলা সমাজসেবা কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে।

গত রোববার (৮ নভেম্বর) কিশোরগঞ্জ ২৫০শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে স্বাভাবিকভাবে কন্যা সন্তান প্রসব করেন মানসিক ভারসাম্যহীন ওই কিশোরী। সেখানে গত তিন চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয় তাদের।

ওই কিশোরী তার নিজের এবং নবজাতকের যত্ন নিতে না পারায় তাদের সমাজসেবা অধিদফতরের আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

তবে উপজেলা ও জেলা সদর হাসপাতালে তারা বিশেষ চিকিৎসা সেবা পেয়েছে। পাশাপাশি উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক তাদের খোঁজখবর নিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জেলা প্রবেশন অফিসার মো. মোহসীন কিশোরগঞ্জ নিউজকে বলেন, ‘কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের রক্ষণাবেক্ষণ করতে কিছুটা সমস্যা হচ্ছিল।

কেননা ওই কিশোরী মানসিক ভারসাম্যহীন। তাঁর সদ্যজাত কন্যা সন্তানকে দেখাশোনা করতে আলাদা লোক দরকার ছিল।

সে বিষয়টি বিবেচনা করে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের তত্ত্বাবধানে ওই কিশোরী ও নবজাতককে সমাজসেবা অধিদফতরের গাজীপুরের পুবাইলে অবস্থিত আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

সেখানে তারা ভালো থাকবে। তবে কেউ যদি ওই কন্যাসন্তানকে দত্তক/অভিভাবকত্ব নিতে চান তবে তারা ওই আশ্রয় কেন্দ্রে যোগাযোগ করতে পারবেন।’

প্রসঙ্গত, গত ২৯ অক্টোবর অসুস্থ্য অবস্থায় উপজেলার কালিয়াচাপড়া এলাকা থেকে ওই মানসিক ভারসাম্যহীন ও পরিচয়হীন কিশোরীকে উদ্ধার করে উপজেলা প্রশাসন। ওই কিশোরী অন্ত:সত্ত্বা ছিল। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার (৮ নভেম্বর) সকালে সে অসুস্থবোধ করলে তাকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। ওই দিন রাত ৯টার দিকে স্বাভাবিকভাবে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন ওই কিশোরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category