আজ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

হোসেনপুরে লীজের জমি নিয়ে দুই পক্ষের দ্বন্দ্ব চরমে

নিজেস্ব প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার মাধখলা মৌজার ৮/০১/১৯৯৪ ইং সালে স্মারক নং ১৭ নিম্ন তফসিল ভক্ত ভূমি ২০৬০/৬৭৬৮ ভিপি বন্দোবস্ত মোকদ্দমা মূলে খতিয়ান নং ৮১১ দাগ নং ১৭৫৮ শ্রেণী কান্দা পরিমাণ ২৬ শতাংশ ভূমি লীজ গ্রহণ করে মো. সমির উদ্দিন পিতা মৃত ইসমাইল হোসেন ১৯৯৪ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রতিবছর লীজের টাকা হোসেনপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় পরিশোধ করে আসছিল। সমির উদ্দিনের মৃত্যুর পর তার একমাত্র ছেলে মো. এনামুল হক ২০১৯ সালে (১৪১০ এক হাজার চারশত দশ টাকা) লীজ মানি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ওয়াহিদুজ্জামানের এর কার্যালয় পরিশোধ করে। এ বিষয়ে মৃত সমীর উদ্দিনের ছেলে এনামুল জানায় ২০২০ সালের লীজের টাকা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু বক্কর সরকার গ্রহণ করছে না। লীজের টাকা গ্রহণ না করায় আমার প্রতিপক্ষের লোকজন তফসিলভুক্ত ভূমি দখল করে ঘর নির্মাণ করছে। মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে হাসিম উদ্দিন জানান এই জমিটি আমার পিতার নামে লীজ আনা হয়েছিল আমরা পাঁচ ভাই সকলেই এ জমির মালিক। উক্ত ভূমিতে হাসিম উদ্দিন পক্ষ মাসুদ মিয়া পিতা মৃত মহর উদ্দিন ঘর নির্মাণ করছে এনামুল পক্ষ বাধা দেওয়ায় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে দুই পক্ষের দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করেছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে হোসেনপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবুবক্কার সরকার জানান অফিশিয়াল কাজে ব্যস্ত আছি রবিবারে অফিসে এসে বিস্তারিত জেনে নিবেন। এ ব্যাপারে হোসেনপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রাবেয়া পারভেজ জানান উক্ত তফসিলভুক্ত ভূমি এনামুল হকের পূর্বপুরুষের নামে লীজ থাকায় তার একার পক্ষে লীজের টাকা পরিশোধ করার কোনো সুযোগ নেই। তিনি আরো জানান এ ভূমিতে এনামুলের কোন দখল নেই। অন্যান্য পক্ষ দখলে রয়েছে। এ বিষয়ে আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category