আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

হোসেনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন কে সামনে রেখে আলোচনায় আসেন অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান মিলটন।

আশরাফুল ইসলাম ভূঁইয়া : হোসেনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত নেতা মরহুম মরজত আলী মাস্টার এর জৈষ্ঠ সন্তান, হোসেনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে সম্মেলনে সকল নেতাকর্মীদের  সাথে মতবিনিময় করেন করেন জানা গেছে তৃণমূল সবাই তাকে সভাপতি পদে প্রস্তাব করায় মনোনয়ন প্রত্যাশা করেন তিনি।তাদের মধ্যে পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিত মুখ এডভোকেট কামরুল আহসান মিলটন ইতিমধ্যে বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে তৃণমূল নেতাদের নিয়ে আলোচনা করে সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন আদর্শবান এই নেতা। জনপ্রিয় কর্মীদের বিপদে-আপদে পাশে থাকবেন বলে যুবসমাজের প্রিয়মুখ তিনি। তিনি বলেন আমার শরীরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রক্ত আমি আওয়ামী পরিবারের সন্তান, অত্র উপজেলায় আমার পারিবারিক ও দলীয় কর্মকান্ডে ব্যাপক পরিচিত রয়েছে আমি আমার বাবার মতো আপনাদের পাশে থাকতে চাই।প্রয়াত নেতা মরজত আলী মাস্টার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে ১৯৬৯সন হইতে উপজেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্ব নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেন।তারপর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিটি সম্মেলনে বিপুল ভোটে সভাপতি পদে নির্বাচিত হন। ১৯৭৫সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর সামরিক সরকার কর্তৃক কারাবন্দি হয়ে দীর্ঘ ১৪দিন আর্মির টার্চার থাকা  অবস্থায় ময়মনসিংহ কারাগারে ১ বছর ২মাস কারাবন্দি ছিলেন ১৯৭৬-১৯৭৭সালে জেল থেকে মুক্তি পেয়ে আবার আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে সকল তৃণমূল নেতাকর্মীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের সকল কর্মকাণ্ড চালিয়ে যান। যার ফলশ্রুতিতে জিয়াউর রহমানের শাসনআমলে হোসেনপুর-পাকুন্দিয়া নির্বাচনী এলাকা হইতে আওয়ামীলীগ প্রার্থী  আসাদুজ্জামান খান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। তিনি সর্বদায় আওয়ামী লীগের সকল সদস্যদের খোঁজখবর রাখতেন।২০০০সালের ২৬শে মার্চ দলীয় কার্যালয়ে পতাকা উত্তোলন অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। দীর্ঘ ৩১বছর সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে যান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     More News Of This Category